Logo

ট্রেনে প’রিচয়, বাড়িতে ডেকে ন;’গ্ন ছবি তুলে ১০ লাখ টাকা দা’বি করলো

ট্রেনে প’রিচয়ের সূত্র ধ’রে চলতে থাকে ফোনে কথোপকথন। ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে বি’শ্বা’স। সেই বি’শ্বা’সের সূত্র ধ’রেই ডেকে আনা হয় বাড়িতে। এরপর তোলা হয় ন;’গ্ন ছবি। পরে ওই ছবিকে ব্ল্যা’কমেইল করে দা’বি করা হয় ১০ লাখ টাকা চাঁদা।

এভাবেই প্র’তারণার শি’কার হয়েছেন এক যুবক। প্র’তারণার শি’কার ওই যুবকের নাম করিম। পুলিশ বলছে, রাজশাহীতে এ চ’ক্রটি দীর্ঘদিন ধ’রেই সক্রিয়। তারা ফিটিং পার্টির সদস্য। রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) অ’ভিযান চালিয়ে ফিটিং পার্টির দুই না’রী সদস্যসহ তিনজনকে গ্রে’’ফতার করেছে পুলিশ।

গ্রে’’ফতাররা হলেন-রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থা’নাধীন উপশহর এলাকার রহিমের মেয়ে সাবিনা ওরফে রজনী (২৫), নগরীর শাহমখদুম থা’নার বড়বনগ্রাম ফুলতলার আব্দুর র’শিদের ছেলে আব্দুল গাফফার (৩০) ও নগরীর চন্দ্রিমা থা’নার নামোভদ্রা এলাকার রিয়াজ উদ্দিনের মেয়ে রিয়া আক্তার পাখি (১৯)।

নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মক’র্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন জানান, নগরীর উপশহর এলাকার রহিমের মেয়ে সাবিনা ওরফে রজনী মাঝে মধ্যে ট্রেনে ঢাকায় যাতায়াত করতেন।

সেই সুবাদে সরকারী চাকরিজীবী ওই ব্যক্তির স’’ঙ্গে তার প’রিচয় হয়। প’রিচয়ের সূত্র ধ’রে রজনী তাকে নিজের বাড়িতে দাওয়াত দেন। তার কথায় শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার পর করিম ওই বাড়িতে যান। রজনী তাকে চা খেতে দেন।

একপর্যায়ে তিনি ছাড়াও আরেক না’রী ও দুই পুরুষ তার কাছে আসেন। পরে তারা জো’রপূর্বক তাকে ন;’গ্ন করে ছবি তোলা শুরু করেন। পরে এর ভিডিও চিত্রও ধারণ করেন। সেই ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছেড়ে দিয়ে ভাইরাল করার ভ’য় দেখিয়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দা’বি করেন।

ওই ভু’ক্তভো’গী ব্যক্তি জানান, তার কাছে ১০ লাখ টাকা নেই জানালে তার কাছে থাকা সোনার আংটি কেড়ে নেন প্র’তারকরা। নন- জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে নেন। এরপর বাইরে এসে বিকাশের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা নেন।

পরে ছাড়া পেয়ে ওই ব্যক্তি বোয়ালিয়া মডেল থা’নায় গিয়ে অ’ভিযোগ করেন। তার অ’ভিযোগের প’রিপ্রেক্ষিতে বোয়ালিয়া মডেল থা’না পুলিশের একটি দল রোববার সকালে অ’ভিযান চালিয়ে রজনী ও তার প্রে’মিক আব্দুল গাফফারসহ পাখিকে গ্রে’’ফতার করে।

এসময় তাদের কাছে থাকা দুইবারে বিকাশের মাধ্যমে বা’দীর কাছ থেকে নেয়া নগদ ৮ হাজার টাকা, ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের সোনার আংটি, স্বাক্ষরিত নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প, বাদীর ন;’গ্ন ছবি ও ভিডিও চিত্র ধা’রণকৃত মোবাইল ফোন উ’’দ্ধার করা হয়।

এ বি’ষয়ে বোয়ালিয়া থা’নায় মা’মলা দা’য়ের করা হয়েছে। আ’ইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ওসি নিবারণ চ’ন্দ্র ব’র্মন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost
error: এই সাইটের নিউজ কপি করা বেআইনী !!