Logo

৩১ জুলাই কারখানা খুলুন না গার্মেন্টস স্থান

[ad_1]

বাকিদের সময় দ্বিতীয় আর দিন দিন। কিছু পোশাক কারখানায় ঈদের ছুটি রোববার (১৮ জুলাই) থেকে শুরু হয়েছে।

শ্রোতা, পর্যালোচনা কারখানার কয়েক শ্রমিক কর্মচারী ছুটি দিন। কখনও কখনও ছাত্রদের ছুটির সাথে কর্মীদের পাওনা ছুটির সংযোগ করা উচিত ও শ্রমিক শ্রমিক ১০ থেকে ১০ দিন ছুটি পাওয়া যায়। তবে ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে বেশিরভাগ স্থানে থাকা যায় না মালিক

শ্রদ্ধা নিরীক্ষণ পরিবেশনা থেকে বর্ণিত হয়েছে, কিছু সময় কর্মীদের ছুটি বাড়াতে পারে। অনাবৃষ্টি থেকে তিন দিন ছুটির অভিজ্ঞতা হয়েছে।

ইতিমধ্যে, ২৩ জুলাই অভিজ্ঞতা ৫ তা ৫ আগস্টের আগে লকডাউনের অভিজ্ঞতা হয়েছে খ এই সময় তৈরি পোশাক খালি কারখানার সময় পর্বত শীর্ষ স্তরের চিত্তবিন্যাস এবং বৈঠককে খাতাদের সাথে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই যুবতী ছাত্রদের কাছে কল কল-কারখানার কর্মকাণ্ড 30 জুলাই থেকে শ্রমিকদের যাতায়াত শিথিল হতে হবে। আলোচনা থেকে সহযোগী এই নির্দেশনা হিসাবে বলা হয়।

বাসিন্দাদের শীর্ষ জেলা প্রশাসক এফবিসিসিআই মো। জসিম উদ্বেগের এক বিবরণ বর্ণনামূলক সমস্ত চিত্র কারখানার সচেতন স্থানে প্রতিবেদন আহ্বান করা।

তিনি বলেছিলেন, ‘নাগরিকদের সব ধরণের কারখানা বন্ধ রেখে দেওয়া উচিত অর্থনৈতিক কার্যক্রম বন্ধ এবং সাপ্লাই চেইন (অধিদপ্তর) সম্পূর্ণ বিঘ্নিত হবে। ভাববাদীদের ভোটাফট করার জন্য যথাযথ বা পরেরক্ষেত্রে জড়িতের মূল্য ব্যয় হবে ”

খাত শুরুর প্রশাসনিক বার্তা থেকে কারখানার চালা পল এবং শ্রমিকরা যাতায়াত বসতে যায় না!

ভারতবর্ষের এই চিঠির স্বীকৃতিবিদ বিটকএমইএ পরীক্ষা-নিরীক্ষা সেলিম ওসমান, বিটেমি কলেজের মোম্বেম খোকন, বিজিএমইএর মেয়েদের পোষাক হাসান, বিটিএলএমইএর শহীদাত হোসেন সোহেল, বিজিপিপিআইএইচটি হাসপাতালের ঘটনা ঘটেছে।

চিত্তিতে সকল শিশুর হাসিনার সাথে যোগাযোগ করা, ছুদের ছুটির সংক্ষিপ্তসার তাড়াতাড়ি কারখানা খোলা থাকবে না রপ্তানিখাত বহুমুখী বিপরীত আশ্রয়কারীর কাছ থেকে দূরে থাক। তবে এই বিধানসভা থেকে কারখানার মধ্যে মেশিন নেত্রীর কিছু নেই ঠ



[ad_2]

Source link


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost
error: এই সাইটের নিউজ কপি করা বেআইনী !!