Logo
শিরোনাম:
জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশনে বিভিন্ন দাবিতে কর্মসূচি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গাজীপুর সদর মেট্রো থানা শাখা এর ত্রি বার্ষিক সম্মেলন ২০২২। বিক্রয় অযোগ্য সরকারি ৫০ বস্তা চাউল উদ্ধার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা বেঁচে আাছেন যতদিন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী হিসাবে চাই ততদিন। গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খান ও সাদারণ সম্পাদক আতাউল্লা মন্ডল। গাজীপুর মহানগর যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মোঃহিরা সরকার। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গাজীপুর মহানগর। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৫০ তম। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৩২ নং ওয়ার্ডে ন্যায্য মুল্যে চাউল আটা দেওয়া হচ্ছে। ময়মনসিংহে সড়কে প্রাণ গেল নারী-শিশুর

মোংলায় আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৪

মোংলায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১৪ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুই পক্ষের দুইজনকে গুরুতর অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মোংলায় আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৪
মোংলায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১৪ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুই পক্ষের দুইজনকে গুরুতর অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার সুন্দরবন ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নব নির্বাচিত মেম্বর প্রার্থী এমরান বিশ্বাস ও পরাজিত প্রার্থী আউয়াল জোমাদ্দারের সমর্থকরা ইউপি নির্বাচন ইস্যুতে শুক্রবার দুপুরে কচুবুনিয়া বাজারে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। পরে উভয় পক্ষের তর্ক-বির্তক সংঘর্ষে রূপ নেয়।

এসময় উভয় পক্ষই লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের ১৪ জন আহত হয়। আহতদেরকে দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সন্ধ্যায় খুলনায় পাঠানো হয়েছে।

আহতরা হলেন- আউয়াল জোমাদ্দারের সমর্থক মনির শিকদার, ওবায়দুল শিকদার, মালেক, মোকসেদুল, অলি মৃধা, কবির মল্লিক, লাভলু শিকদার, জামাল খন্দকার ও সুমন এবং এমরান বিশ্বাসের সমর্থক হলেন সাখাওয়াত, কামাল শিকদার, রাসেল শিকদার, মজিবর হাজী, আজিজুল শিকদার।

আরও পড়ুন: টাঙ্গাইলে মামা-ভাগ্নে মিলে তরুণীকে ‘গণধর্ষণ’!

আহতদের মধ্যে আউয়াল জোমাদ্দারের সমর্থক মনির শিকদার ও এমরান বিশ্বাসের সমর্থক রাসেল শিকদারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় পাঠানো হয়েছে।

এদিকে আউয়াল জোমাদ্দার ও এমরান বিশ্বাস নির্বাচনকে ঘিরে ভোট দেওয়া না দেওয়া এবং স্থানীয় গ্রুপিং নিয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনায় একে অপরকে দোষারোপ করেন।

এ বিষয়ে মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম জানায়, খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি, অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost
error: এই সাইটের নিউজ কপি করা বেআইনী !!