Logo

বক্স আনার কথা বলে ১৪ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ।

গাজীপুর মহানগর ১৫ নং ওয়ার্ড বাসন থানার অধীনে মোছাম্মদ রুপা নামের এক মেয়েকে ধর্ষণ। মেয়ের বাবার নাম মোঃ হারুন মাতার নাম মোসাম্মৎ নাসরিন। মেয়ের গ্রামের বাড়ি বাটাবাট পাড়া থানা ফুলপুর তারাকান্দা জেলা-ময়মনসিংহ।

তাং ২১/১১/২০২১ মেয়েটিকে তার বাবা মা গাজীপুর মহানগর ১৫ নংওয়ার্ডে কলম্বিয়াহাজী মোঃ মোনতাজউদ্দিনের বাড়া বাড়িতে রাইখা ২টায় অফিসে যান।মেয়ের বাবা বললেন আমার কাছে প্রায় ৪টার দিকে খবর আসে আমার মেয়ে মাথা ঘুরে রাস্তায় পড়ে যায়।
খবর পেয়ে আমি আমার মেয়ের কাছে আসি। তারপর আমি আমার মেয়েকে নিয়ে শহীদ তাজউদ্দিন হাসপাতালে যাই। তারপর হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক জানান তাকে বিষাক্ত ট্যাবলেট খাওয়ানো হয় এবং ধর্ষণ করা হয়। যার ফলে মেয়েটির মৃত্যু হয়। তারপর আমি যখন বাড়িতে আসি তখন আমার ছোট মেয়ে আমাকে বলে তার বোনকে আসামি ১ (রাজমিস্ত্রি মোহাম্মদ কাউসার) পিতা অজ্ঞাত ২ (মোঃ জাকির সরকার) পিতাঃ হাজী মোনতাজউদ্দিন গ্রাম কলম্বিয়া ১৫ নংওয়ার্ড থানা বাসন জেলা গাজীপুর মহানগর ৩ অজ্ঞাত আরো ৪-৫ জন ছোট মেয়ে দেখে ফেলে তারপর তাকে ঐখান থেকে চলে যেতে বলে।
আমার ছোট মেয়ে বয়ে চলে যায়।
আমার মেয়ের বয়স ১৪ বছর আমি মোঃহারুন বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমার মেয়ের মৃত্যুর বিচার চাই এবং দেশবাসীর কাছে আমার মেয়ের বিচার চেয়ে আকুতি করছি।

থানায় মামলা চলমান।

মাতৃবাংলা

প্রকাশক

মোঃআলীহোসেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost
error: এই সাইটের নিউজ কপি করা বেআইনী !!