Logo
শিরোনাম:
গাজীপুর মহানগরীর সামান্তপুরে এক সাংবাদিকের বাড়িতে চুরি হয়েছে। গাজীপুরে গজারিয়া পাড়া বস্তবাড়িতে আগুন লেগে ৫ টি ঘর পুড়ে ছাই। গাজীপুরের ময়মনসিংহ মহাসড়কে রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তা   ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমেছে। বকেয়া বেতন, ঈদ বোনাস ও বাৎসরিক ছুটির টাকা পরিশোধের দাবিতে শ্রমিকেরা সড়ক অবরোধ করে। গাজীপুর প্রেসক্লাবের বার্ষিক ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাজীপুর ইজিবাইক ছিনতাইকারী চক্রের মূলহোতাসহ ৫ জনকে আটক করেছে ব্যাব-১। গাজীপুর শহিদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা দিয়েছেন শ্রীপুর উপজেলা প্রশাসন। ২২ নং ওয়ার্ড বাংলাবাজারে রমজান মাসে চলছে অবৈধ মেলার রমরমাট ব্যবসা। কলেজে প্রবেশের রাস্তা বন্ধ করে মার্কেট নির্মাণ করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ পবিত্র মাহে রমজান মোবারক ২০২৪।

মনোনয়নপত্রের বৈধতা পেতে রিট করতে যাচ্ছেন জাহাঙ্গীরসহ ২০ প্রার্থী।

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীদের মধ্যে ২০ জন প্রার্থী রিট করার জন্য নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছ থেকে এ সংক্রান্ত সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করেছেন। তাদের মধ্যে সাময়িক বরখাস্তকৃত মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমও রয়েছেন। 

মঙ্গলবার (২ মে) বিকেল পর্যন্ত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমসহ অনেকে সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করলেও মনোনয়ন বাতিল হওয়া স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অলিউর রহমান এবং আবুল হোসেন ওই কপি সংগ্রহ করেননি।

প্রার্থীতার বৈধতা চ্যালেঞ্চ করে রিট করার জন্য অন্য যারা সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করেছেন তারা হলেন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৭নং ওয়ার্ডের প্রার্থী আয়েশা আক্তার, ১৫নং ওয়ার্ডের পারুল বেগম, ১৭নং ওয়ায়ার্ডের মোসা. রোকসানা পারভীন, ১৮নং ওয়ার্ডের ফেরদৌসী বেগম, সাধারণ কাউন্সিলর পর্দে ৬নং ওয়ার্ডের মো. জাহাঙ্গীর আলম, ৭নংওয়ার্ডের মো. হামিদুর রহমান, ৯নং ওয়ার্ডের আনিসুর রহমান, ১২নং ওয়ার্ডের মো. সোলেমান, ১৯নং ওয়ার্ডে মো. শাহিন আলম ও মোশারফ হোসেন, ২০নং ওয়ার্ডের এসএম সরোয়ার জাহান, ২২নং ওয়ার্ডের মো. মোশারফ হোসেন, ২৩নং ওয়ার্ডের মো. খোরশেদ আলম রিপন, ২৭নং ওয়ার্ডের মো. হানিফ উদ্দিন তালুকদার, ৩২নং ওয়ার্ডের সালেহ আহমেদ শাহজাহান, ৩২নং ওয়ার্ডের হাজী মোহাম্মদ আলী, ৩৩নং ওয়ার্ডের জামাল খান ও মো. আমিন উদ্দিন সরকার, ৩৯নং ওয়ার্ডের মো. আবুল কাসেম।

রিট করার জন্য এখনও যারা সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করেননি তারা হলেন, মেয়র পদে মো. অলিউর রহমান ও আবুল হোসেন এবং কাউন্সিলর পদে ৩নং ওয়ার্ডের সাহিদা আক্তার, ৫নং ওয়ার্ডের শিরিন আক্তার, ৪৫নং ওয়ার্ডের গাজী আল আমিন এবং ৫৩নং ওয়ার্ডের মো. কামাল হোসেন।

এর আগে রিটার্নিং কর্মকর্তার সহায়ক (ফোকাল পয়েন্ট) কর্মকর্তা মঞ্জুর হোসেন খান জানান, গত ৩০ এপ্রিল প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইকালে ঋণ খেলাপি, জামিনদার, স্বাক্ষর এবং জামানতের চালান না থাকা ইত্যাদির কারণে তিন মেয়র প্রার্থীসহ ২৬ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। পরে তিন কার্যবিসের মধ্যে তারা তাদের মনোনয়নপত্রের বৈধতা প্রশ্নে বিভাগীয় কমিশনারের কাছে রিট করতে পারবেন। অর্থাৎ ২ মে থেকে ৪ মে পর্যন্ত তারা রিট করতে পারবেন। রিট করতে রিটানিং কর্মকর্তার কাছ থেকে মনোনয়ন বাতিল হওয়া সংক্রান্ত সার্টিফাইড কপির প্রয়োজন পড়ে। এ সময়ের মধ্যে তাদের সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করতে হবে।

সহকারি রিটানিং কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান জানান, ২ মে থেকে ৪ মে পর্যন্ত তারা বিভাগীয় কমিশনারের কাছে রিট করতে পারবেন। আর বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে ৫ মে থেকে ৭ মে’র মধ্যে আপিল শুনানি সম্পন্ন করা হবে।

জানা যায়, ৩০ এপ্রিল যাচাই-বাছাইয়ের পর মেয়র পদে ১২ প্রার্থীর মধ্যে বৈধ হয় ৯ জনের মনোনয়ন আর বাতিল হয় ৩ জনের। সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৮২ প্রার্থীর মধ্যে ৬ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল এবং ৭৬ জনের মনোনয়ন বৈধ হয়, সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে ১৭ জনের প্রার্থীতা বাতিল এবং ২৭২ জনের প্রার্থীতা বৈধ হয়।

গাজীপুর জেলা পতিনিধি

মোঃ আলীহোসেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost
error: এই সাইটের নিউজ কপি করা বেআইনী !!