Logo
শিরোনাম:
হাসপাতালের ভিডিও ধারণ করা বা হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশের জন্য নিতে হবে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন। বাংলাদেশে আবারও শুরু হয়েছে চতুর্থতম অর্থনৈতিক শুমারি। গাজীপুরে অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহারের দায়ে ৮ জনকে ৩ লাখ ১০ হাজার টাকা। গাজীপুরে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন। ঘরমুখো মানুষকে সেবা দেওয়ার জন্য পুলিশের প্রতিটি সদস্য সব সময় প্রস্তুত রয়েছে। গাজীপুর ক্যান্টনমেন্টে গরুর হাটে ক্রেতা- বিক্রেতা শূন্য। গাজীপুরে শুরু হলো ভূমি সেবা সপ্তাহ। গাজীপুর তাকওয়া পরিবহনের একটি মিনিবাসে আগুন দিয়েছে উত্তেজিত জনতা।  গাজীপুরে বিশ্ব দুগ্ধ দিবস পালিত হয়েছে। গাজীপুরে রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তায় ধূমপান মুক্ত বাংলাদেশ চাই সোসাইটির উদ্যোগে রেলি ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

হাসপাতালের ভিডিও ধারণ করা বা হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশের জন্য নিতে হবে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন।

মাতৃবাংলা

হাসপাতালের ভিডিও ধারণ করা বা হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশের জন্য নিতে হবে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন। স্পষ্ট ভাষায় এমনটাই জানিয়ে দিয়েছেন গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোঃ আমিনুল ইসলাম।

মঙ্গলবার দুপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ভিতরে সাংবাদিকদের হাতে টেলিভিশনের লোগো দেখে আপত্তি জানান হাসপাতালের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলার দায়িত্বে থাকা আনসার সদস্যরা। আনসার সদস্যরা উপস্থিত সাংবাদিকদের হাতে থাকা টেলিভিশন চ্যানেলের লোগো ব্যাগের ভিতরে ঢুকানোর জন্য চাপ সৃষ্টি করেন এবং হাসপাতালের পরিচালকের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, হাসপাতালে অবস্থানকালে কোন টেলিভিশন চ্যানেলের লোগো হাতে রাখা যাবেনা।

এ বিষয়ের গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের পরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশের জন্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন নিতে হবে। এমনকি ছবি ধারণের ক্ষেত্রেও নিতে হবে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন। তিনি জানান, বাইরে থেকেও হাসাপাতালের কোন ধরণের ছবি উঠানো যাবেনা।

জানা যায়, গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালটি ‘দুর্নীতির আতুড়ঘর’ হিসেবে গাজীপুরবাসীর কাছে বেশ সুপরিচিত। কিছুদিন পূর্বে এ হাসপাতালের নানান অনিয়ম আর দুর্নীতির সংবাদ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রচার করা হয়। সংবাদ প্রচারের পরিপ্রেক্ষিতে হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এরপর থেকেই সংবাদকর্মী নিয়ে কঠোর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যাওয়া অনেকেই জানান, নানান অনিয়ম আর দুর্নীতে জর্জরিত গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল। দেশের জনগণের অর্থায়নে পরিচালিত সরকারি এ হাসপাতালকে দুর্নীতি মুক্ত করতে প্রশাসনকে শক্ত অবস্থানে যেতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost
error: এই সাইটের নিউজ কপি করা বেআইনী !!